মোহাম্মদ সোহেল, নোয়াখালী :
নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ (সদর-সুবর্ণচর) আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী বলেছেন, করোনাকালীন সময়ে মাঠে থেকে অসহায় মানুষের সেবা করার সুযোগ কাজে লাগিয়েছেন তিনি। তাঁর নেতৃত্বে দলীয় নেতা কর্মীরা অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন। অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে এসময়ে তিনি গড়ে তুলেছেন একরামুল করিম চৌধুরী ফাউন্ডেশন। এ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমেও অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে নিজ বাসভবনে এক সাক্ষাৎকারে এমপি একরামুল করিম চৌধুরী এসব কথা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, করোনাকালীন সময়ে তাঁর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে সারাদেশে করোনায় নিহত সাংবাদিক, পুলিশ ও ডাক্তারদের পরিবারের সদস্যদের জন্য জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে নগদ আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেছেন তিনি। এছাড়া স্বাস্থ্য সু-রক্ষার জন্য সাড়ে তিন লাখ মাস্ক ও স্যানেটাইজার বিতরণ করেন এ জনপ্রতিনিধি।

এসময়ে অনেক সংসদ সদস্যকে করোনা ঝুঁকির মধ্যে এলাকায় দেখা না গেলেও একরামুল করিম চৌধুরী ঝুঁকি নিয়ে মাঠে ছিলেন এবং সব সময় নেতা কর্মী ও সাধারণ মানুষের খোঁজ খবর রাখতেন।

একরামুল করিম চৌধুরী বিএনপির রাজনীতি নিয়ে বলেন, করোনাকালীন পরিস্থিতিতে বিএনপিকে মাঠে দেখা যায়নি। এই দলের প্রতি মানুষের এখন কোনো আস্থা নাই। এরা জনশূন্য হয়ে পড়েছে, এখন মিডিয়া ও ফেসবুকই তাদের রাজনীতির একমাত্র ভরসা। করোনাকালীন সময়ে তারা মানুষের পাশে দাড়ানো উচিৎ। ছিলো কিন্তু তারা তা দেখাতে পারেনি বলে মন্তব্য করেন এমপি একরাম।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/রা

Sharing is caring!