নিউজ ডেস্ক :

দুয়ারে কড়া নাড়ছে দেশের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। এদিকে সারা দেশে মহামারি করোনা ভাইরাসের বিস্তার বেড়েই চলেছে। অথচ এ সংকটকালীন সময়েও পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ-এর সদস্যভুক্ত ১১২টি তৈরি পোশাক কারখানায় এখনও শ্রমিকদের জুন মাসের বেতন হয়নি। বেতনের দাবিতে প্রায় প্রতিদিনই করোনা পরিস্থিতিতেও শিল্প এলাকাগুলোতে শ্রমিক বিক্ষোভ চলছে। এরইমধ্যে করোনা সংকট শুরুর পর বন্ধ হয়ে গেছে প্রায় কয়েকশো কারখানা।

বিজিএমইএ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বিজিএমইএ-এর সদস্যভুক্ত ১ হাজার ৯২৬টি তৈরি পোশাক কারখানা চালু রয়েছে। এর মধ্যে গতকাল সোমবার ২০ জুলাই পর্যন্ত ১ হাজার ৮১৪টি পোশাক কারখানা তাদের শ্রমিকদের জুন মাসের বেতন দিয়ে দিয়েছে। তবে ১১২টি কারখানা এখনও তাদের শ্রমিকদের জুন মাসের বেতন পরিশোধ করেনি।

এর আগে গেল জুন মাসেও প্রায় ৭০টির মতো পোশাক কারখানার শ্রমিকরা মে মাসের বেতন পায়নি। বিজিএমইএ’র পক্ষ থেকে তখন বলা হয়েছিল, যেসব পোশাক কারখানা এখনও শ্রমিকদের বেতন দেয়নি সেই কারখানাগুলোর অধিকাংশই আকারে ছোট। সেসব কারখানায় গত এপ্রিল মাসেও শ্রমিকদের শতভাগ বেতন দেয়া হয়নি।

গতকাল তৈরি পোশাক কারখানা মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র দেয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, গত ২০ জুলাই পর্যন্ত তাদের সদস্যভুক্ত ১ হাজার ৯২৬টি কারখানার মধ্যে ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় রয়েছে ৩৩৩টি। এর মধ্যে জুন মাসের বেতন-ভাতা দিয়েছে ২৯২টি প্রতিষ্ঠান। গাজীপুরের ৭১৩টি কারখানার মধ্যে বেতন দিয়েছে ৭০৮টি, সাভার আশুলিয়ার ৪১২টি কারখানার মধ্যে বেতন দিয়েছে ৩৯৯টি কারখানা, নারায়ণগঞ্জে ১৯৮টি পোশাক কারখানার মধ্যে জুন মাসের বেতন পরিশোধ হয়েছে ১৮৩টিতে। চট্টগ্রাম অঞ্চলে ২৫২টি পোশাক কারখানার মধ্যে ২১৪টি কারখানা শ্রমিকদের জুন মাসের বেতন পরিশোধ করেছে। এছাড়া দেশের অন্যান্য অঞ্চলে ১৮টি কারখানার মধ্যে ১৮টিতেই পোশাক শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করা হয়েছে।

এর আগে মে মাসে বিজিএমইএ-এর সদস্যভুক্ত দেশের ৯৬ শতাংশ পোশাক কারখানা তাদের শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করেছিল। গত এপ্রিল মাসে ৯৮ শতাংশ পোশাক কারখানা শ্রমিকদের বেতন দিয়েছিল। বিজিএমইএ’র জনসংযোগ সংক্রান্ত স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান খান মনিরুল আলম শুভ জানিয়েছেন, জুলাই মাসের বাকি দিনগুলোর মধ্যে আরও কিছু সংখ্যক কারখানা তাদের শ্রমিকদের জুন মাসের বেতন পরিশোধ করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/সকা

Sharing is caring!