আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

মার্কিন জাতীয় মহাসাগর ও বায়ুমণ্ডলীয় প্রশাসনের (এনওএএ) এক গবেষণায় দেখা গেছে, সমুদ্রের তলদেশে তাপমাত্রা আগের তুলনায় বাড়ছে। উরুগুয়ের উপকূলে আটলান্টিক মহাসাগরের চারটি স্থানে ভিন্ন ভিন্ন গভীরতা থেকে রেকর্ড করা এসব হিসাবে এ তথ্য পাওয়া গেছে। গত দশ বছরে ২০০৯ ও ২০১৯ সালে যে গবেষণা চালানো হয়, সেখানে পানির গভীরতা ছিল ১ হাজার ৩৬০ মিটার (৪,৪৬২ ফুট) এবং ৪,৭৫৭ মিটার। যেখানে তাপমাত্রা হয়েছে ০.০২ থেকে ০.০৪ সেলসিয়াস।

জিওফাইজিকাল রিসার্চ জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরিবর্তনটি ক্ষুদ্র বলে মনে হলেও এটি উল্লেখযোগ্য। একজন সমুদ্রবিদ এবং ক্রিস্টোফার মেইনেন বলেন, “আপনি যদি গভীর মহাসাগর কত বড় সে সম্পর্কে চিন্তা করেন, তবে এটি প্রচুর পরিমাণে উত্তাপ যা একটি সতর্ক বার্তা।

প্রতি দশ বছরে সাগরে বিজ্ঞানীদের গবেষণা জাহাজ থেকে যেসব তথ্য সংগ্রহ করা হয় সেখানে বলা হচ্ছে, শতাব্দীর শেষ সময়ে উচ্চ মাত্রার জলবায়ু দূষণ সমুদ্রের গভীরে প্রবেশ করবে এবং গভীর সমুদ্রের প্রাণীদের হুমকির দিকে ঠেলে দিবে। প্রায় ৯০ শতাংশ পৃথিবী দ্বারা শুষিত তাপ মহাসাগরে যায়। যদিও তারা ধীরে ধীরে উষ্ণ হয়। উত্তাপটি জলের অণুগুলোকে প্রসারিত করে, সমুদ্র-স্তর বৃদ্ধিতে অবদান রাখে। এটি হারিকেনকে তীব্র করে তোলে।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/রা

Sharing is caring!