মোহাম্মদ সোহেল, নোয়াখালী :
নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় পারিবারিক কলহের জের ধরে তাহমিনা আক্তার মিনা (৫৫) নামের এক গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা করেছে স্বামী আব্দুর রব বাবুল (৬০)।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার ৬নং কাবিলপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ছাদেকপুর গ্রামের ওলি বেপারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত স্বামী আব্দুর রব বাবুলকে আটক করে। বাবুল একই এলাকার ওলি বেপারী বাড়ির মৃত মজিবুল হকের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন, অভিযুক্ত আব্দুর রব বাবুল প্রবাসী ছিলেন। বাড়িতে আসার পর থেকে তিনি মানসিক সমস্যায় ভূগছেন।

স্বজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সকালে পারিবারিক কলহের জের ধরে আব্দুর রব বাবুলের সাথে তার স্ত্রী তাহমিনা আক্তার মিনার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বাবুল বসত ঘরের বাথরুমে তার স্ত্রীকে ধারালো ছোরা দিয়ে জবাই করে হত্যা করে। পরে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয়রা তাকে ছোরাসহ আটক করে পুলিশে দেয়। পুলিশ ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত মিনা দুই সন্তানের জননী ছিলেন।

সেনবাগ থানার ওসি আবদুল বাতেন মৃধা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে এবং অভিযুক্ত আব্দুর রব বাবুলকে আটক করা হয়। পরবর্তীতে এ ঘটনায় পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/বি

Sharing is caring!