মোহাম্মদ সোহেল, নোয়াখালী :

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় আলোচিত রয়েল গ্রুপের সেকেন্ড ইন কমান্ড মো. ইমন হোসেন ইছা আলমকে সোমবার রাতে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তা ছাড়া একই রাতে পৃথক এলাকা থেকে সাজাপ্রাপ্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ কামরুজ্জামান সিকাদার বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানিয়েছেন, ইমনের বাড়ি বেগমগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ নাজিরপুর গ্রামে। অন্য দুই জন হলেন উপজেলার মধ্যম নাজিরপুর গ্রামের নুর হোসেন জাবেদ ও পৌরসভার হাজীপুর এলাকার আব্দুর রহমান রুবেল।

দেশব্যাপী আলোচিত বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনার পর পরই রয়েল বাহিনীর প্রধান পৃষ্ঠপোষক মুজাহিদপুরের সাহাব উদ্দিনসহ একই এলাকার এস এম রানা ওরফে মেন্টাল রানা, বিপ্লব, রোমন, শাকিল, ইমন, আদর, নোমান, হৃদয়, জাবেদ, সামছু, ফরহাদ, রুনু ইসলাম ও শামীমের গ্রেফতারের দাবি তোলেন এলাকাবাসী। এদের গ্রেফতারের দাবিতে মুসুল্লিরা এলাকায় বিক্ষোভ করেন।

তা ছাড়া তাদের অস্ত্র হাতে মহড়া দেয়ার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই পুলিশ এদের ধরতে মাঠে নামে।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি জানান, ইমনকে গ্রেফতারের পর তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী গভীর রাতে বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মুজাহিদপুর এলাকার একটি মাছের খামারে অভিযান চালিয়ে একটি দেশি পাইপগান ও দেশি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

Noakhaliarrest

এদিকে এক বছর এক মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি নুর হোসেনকে উপজেলার নাজিরপুর থেকে এবং তিন মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি আব্দুর রহমান রুবেলকে পৌরসভার হাজীপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। তবে তারা কোন মামলায় সাজাপ্রাপ্ত তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার দুপুরে তিন জনকেই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/বি

Sharing is caring!