মোহাম্মদ সোহেল, নোয়াখালী :

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের মামলায় দেলোয়ার বাহিনীর দেলোয়ারসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে আদালত।

তবে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে আরেক আসামি ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন সোহাগকে।

বুধবার দুপুরে এই আদেশ দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জয়নাল আবেদীন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মামুনুর রশিদ লাভলু এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শুনানির সময় আসামিদের মধ্যে নয়জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। চারজন এখনও পলাতক। আর ইউপি সদস্য মোয়াজ্জেম গত ৩ জানুয়ারি হাইকোর্ট থেকে জামিন পান।

বেগমগঞ্জের একলাশপুরে গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর ঘরে ঢুকে এক নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করে এর ভিডিও ধারণ করা হয়। সে ভিডিও ৪ অক্টোবর ফেসবুকে ভাইরাল হলে দেশজুড়ে প্রতিবাদ ওঠে। এই ঘটনায় আন্দোলনের মুখে সরকার ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড থেকে বাড়িয়ে মৃত্যুদণ্ড করে।

বেগমগঞ্জের ভুক্তভোগী নারী সে সময় নয় জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেন। একটি নির্যাতনের ঘটনায়, একটি পর্নোগ্রাফি আইনে।

ওই ঘটনায় গত ১৫ নভেম্বর প্রধান আসামি দেলোয়ার হোসেন ও মোয়াজ্জেমসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন, পিবিআই।

সে সময় দুই মামলায় গ্রেপ্তার আসামি রহমত উল্যা ও মাইন উদ্দিন শাহেদকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/বি

Sharing is caring!