মোহাম্মদ সোহেল, নোয়াখালী :
ঢাকা থেকে আসা পাহাড়ে-সমতলে অব্যাহত ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী লংমার্চের সমাপনীতে নয় দফা বাস্তবায়নের জন্য সরকারকে আলটিমেটাম দিয়েছেন বাম সংগঠনের নেতারা।

শনিবার বিকালে নোয়াখালীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ, নোয়াখালী আয়োজিত সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সমাপনীতে বাম সংগঠনের নেতারা এ আলটিমেটাম দেন।

জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি কমিউনিষ্ট পার্টির নেতা মোল্লা হাবিবুর রসূল মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সিপিপি নারী সেলের নেত্রী লক্ষ্মী চক্রবর্তী, বাম নেতা হাবিব উল্যা ইমন, নারী মুক্তি কেন্দ্রের সভানেত্রী সীমা দত্ত, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সমন্বয়ক সুস্মিতা রায়, উদীচি শিল্পগোষ্ঠীর জামসেদ আনোয়ার তপন, সমাজত্রান্ত্রিক মহিলা ফোরামের রোকসানা আফরোজ, ছাত্র ফোরামের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সমাজত্রান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি আলতাফ হৃদয়, ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি মেহেদী হাসান রুবেল, ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা প্রমূখ।

সমাবেশে বাম নেতারা বলেন, একদিকে জাতি বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালন করছে ও স্বাধীনতার অর্ধশত বছর উদ্যাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। ঠিক সেই সময়ে দেশের পাহাড়ে ও সমতলে চলছে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ করে খুনের মতো ঘটনা। বেগমগঞ্জ ও সুবর্ণচরের ঘটনা বাংলাদেশসহ সারা বিশে^ আমাদেরকে লজ্জিত করেছে।
অবিলম্বে ‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ এর অন্যতম দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানে নারী নির্যাতন বিরোধী সেল কার্যকর করা, সিডো সনদে স্বাক্ষর ও তার পূর্ণ বাস্তবায়ন এবং নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক সব আইন ও প্রথা বিলোপ, ধর্মীয়সহ সব ধরনের সভা-সমাবেশে নারীবিরোধী বক্তব্য শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গণ্য করা সহ নয় দফা দাবি মেনে নিতে সরকারকে আহব্বান করছি। তাদের দাবি সমূহ মেনে না নিলে আরো কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

এদিকে ফেনীতে লংমার্চের সমাবেশে দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত ৩৫ জনের মধ্যে ১২জনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে প্রিতম, জুঁই, ইমন, ও ইমার অবস্থা আশংকাজনক। ইতিমেধ্য আহত ইমাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

বেগমগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহজাহান শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঢাকা থেকে আসা ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী লংমার্চে আহত ১২জনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ মহি উদ্দিন আবদুল আজিম বলেন, আহতদের ১২জনকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/রা

Sharing is caring!