নিজস্ব প্রতিবেদক :

দ্বিতীয় ধাপে ৬১টি পৌরসভার তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন ইসি। তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৬ জানুয়ারি এ সব পৌরসভায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন কমিশনের সিনিয়র সচিব মোহম্মদ আলমগীর।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশনে ইসি সচিব ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২০ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ২২ ডিসেম্বর এবং প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ ডিসেম্বর। ইসি সচিব জানান, ৬১টি পৌরসভার মধ্যে ২৯টিতে ইভিএম এবং ৩২টিতে ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট হবে। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে সকাল আটটা থেকে টানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

একই জেলার একাধিক পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রসঙ্গ টেনে মো. আলমগীর বলেন, ব্যালট এবং ইভিএম ব্যবহারের ক্ষেত্রে আমরা বিবেচনায় নিয়েছি যে, একটি জেলায় একইসঙ্গে ব্যালটে এবং ইভিএমে ভোট হবে। এবার মোট চারটি ধাপে ১৯৪টি পৌরসভার ভোট হবে। ইতিমধ্যে প্রথম ধাপে ২৫টি পৌরসভার তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।

ডিসেম্বরে চট্টগ্রাম সিটিরও  হতে পারে ভোট
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ আলমগীর জানান, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভোটগ্রহণের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন প্রাথমিক পর্যায়ে আলোচনা করেছে। এখানে তফসিল দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। কেবলমাত্র ভোটের তারিখ ঘোষণা হবে। কমিশনের সিদ্ধান্ত হলে ভোটের তারিখ জানানো হবে।

এক্ষেত্রে ডিসেম্বরের শেষ দিকে ভোট হতে পারে। তবে কোনও কারণে ডিসেম্বরে সম্ভব না হলে জানুয়ারিতে হবে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভোট অনুষ্ঠানে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ইসির হাতে সময় আছে বলেও সচিব জানান। ইসি সচিব জানান, তৃতীয়ধাপের পৌরসভার ভোট জানুয়ারির শেষের দিকে। আর চতুর্থ ধাপের ভোট হবে মধ্য ফেব্রুয়ারিতে। এ লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসি।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/রা

Sharing is caring!