সংলাপ ডেস্ক :

কারাগারে থাকাকালীন কোনো নারী বন্দি অন্তঃসত্ত্বা হলে তোলপাড় সৃষ্টি হতে বাধ্য। আমেরিকার নিউ জার্সির এই ঘটনা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। নিউ জার্সির এডনা মাহান কারেকশনাল ফ্যাসিলিটি নিউ জার্সির একমাত্র কারাগার যেখানে শুধুমাত্র মহিলা বন্দীদের রাখা হয়। এমন পরিস্থিতিতে দুই বন্দির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আমেরিকার কারাগারে বন্দি দুই নারীর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর সামনে এসেছে। ডিপার্টমেন্ট অফ কারেকশনের, ফরেন অ্যাফেয়ার্সের নির্বাহী পরিচালক ড্যান স্পেরজা জানিয়েছেন, কারাগারে থাকা অন্য নারী বন্দীর সঙ্গে দুই পক্ষের সম্মতিতে শারীরিক সম্পর্কের পর দুই নারী বন্দি গর্ভবতী হয়েছেন। যে বন্দীর সঙ্গে ওই নারীদের সম্পর্ক ছিল তিনি প্রথমে একজন পুরুষ ছিলেন এবং পরবর্তীকালে অপারেশনের পরে নারী হন। স্পেরজা গর্ভবতী নারী বন্দীদের নাম প্রকাশ করেননি।

তিনি আরও জানিয়েছেন যে বিষয়টি সামনে আসার পরেই তদন্ত শুরু হয়েছে। জানা গেছে যে, এই কারাগারে বন্দি সব নারী বন্দির মধ্যে ২৭ জন রূপান্তরকামী। ২০২১ সালে, নিউ জার্সি একটি নীতি প্রণয়ন করে যেখানে বলা হয় রাজ্য কারাগারে, ট্রান্সজেন্ডারদের তাদের নতুন পরিচয়ের ভিত্তিতে জেলে পাঠানো হবে। জন্মের সময় তাদের লিঙ্গ পরিচয়ের ভিত্তিতে তাদের জন্য কারাগার নির্বাচন করা হবে না।

বিষয়টি সামনে আসার পর প্রশ্ন উঠছে জেল প্রশাসনকে নিয়েও। কারাকর্মীদের উপস্থিতিতে কীভাবে এই ঘটনা সম্ভব হল সেই নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। এই ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ এই ঘটনা জেল কর্মীদের কাজ নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে। সুত্র: জি২৪ ঘণ্টার।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/দু

Sharing is caring!