সংলাপ প্রতিবেদক :

টাইগারদের দেয়া ১৫৬রানের জবাবে ব্যাট হাতে ধুকছে আফগানরা। এমনকি দলীয় ২০রানে ৪ উইকেট খুইয়ে চাপে পড়েছে সফরকারীরা। তাদের টুটি চেপে ধরেছে টাইগাররা বোলার নাসুম আহমেদ। তিনি একাই ৪উইকেট শিকার করেছেন।

এর আগে সফরকারী আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ব্যাট হাতে দাপটে খেলছে বাংলাদেশ। মিরপুরে বৃহস্পতিবার (৩মার্চ) টস জিতে আগে ব্যাটিং করে ১৫৫ রান তুলেছে মাহমুদউল্লাহ বাহিনী। এখন বল হাতে নবি-রশিদদের দ্রুত সাজঘরের পথ দেখাতে সক্ষম হলেই জয় সম্ভব।

এদিন টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে কোন ভুল করেননি মাহমুদউল্লাহ। তার সিদ্ধান্ত সঠিক প্রণাম করতে ব্যাট হাতে শুরুটা ভালই করেন অভিষিক্ত মুনিম শাহরিয়ার। কিন্তু তাকে বেশিক্ষন সঙ্গ দিতে পারেনি মোহাম্মদ নাঈম। তিনি দলীয় ১০রানে আউট হন।

সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারলেন না নাঈম। ২ রান করে ইনিংসের তৃতীয় ওভারে আউট হন তিনি।

এরপর চতুর্থ ওভারে মুজিব উর রহমানকে টানা দুই চার মেরে ঝড়ের আভাস দিয়েছিলেন মুনিম। কিন্তু পঞ্চম ওভারের রশিদ খানের বলে আউট হন মুনিম। ৩ চারে ১৮ বলে ১৭ রান করেন তিনি। এরপর সাকিব আল হাসান ৬ বল খেলে ৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন । লিটনকে তিনি সঙ্গ দিতে পারেননি।

মুনিম-সাকিব ফেরার পর লিটনের জুটি গড়ে তোলার চেষ্টা করেন মাহমুদউল্লাহর। কিন্তু ১০ রানের বেশি করতে পারেননি টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। ৭ বলে ১ ছয়ে এই রান তুলে আউট হন। এরপর যতই ম্যাচের সময় বাড়ে লিটনকে ক্রিজে রেখে একে একে সাজঘরে ফিরেন সবাই। তবে ঢাল হয়ে দাড়িয়ে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে পঞ্চম হাফসেঞ্চুরি করেছেন লিটন। তিনি ৩৪ বলে ৩চার ও২ ছক্কায় হাফসেঞ্চুরি করেন। মূলত তার ব্যাটে ভর রানের চাকা সচল ছিল। লিটন ৪৪ বল মোকাবিলা করে চারটি ৪ ও ২ছক্কায় ৬০ রান করে আউট হন। এরপর দলের হাল ধরেন তরুন ক্রিকেটার আফিফ হোসেন। তবে দ্রুত রান তুলতে গিয়ে ২৪ বলে ২৫ রান করে সাজঘরে ফিরেন তিনি।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/বি

Sharing is caring!