নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালী পৌরসভা নির্বাচনে ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল কালাম সুজনের নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে। এ ঘটনায় দুই কাউন্সিলর প্রার্থী পাল্টাপাল্টি অভিযোগ তুলেছেন।
সোমবার দিবাগত গভীর রাতে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মহিলা রোড়ে উটপাখি প্রতীকের নির্বাচনী ক্যাম্পে এই ঘটনা ঘটে।
উটপাখি প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল কালাম সুজন বলেন, সোমবার গভীর রাতে মহিলা রোড়স্থ  আমার উটপাখি প্রতীকের নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয় দুবৃর্ত্তরা। তবে ভোটের মাঠে আমার জনপ্রিয়তা দেখে প্রতিপক্ষ টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী জাহিদুর রহমান শামীমের লোকজন এই ঘটনা ঘটাতে পারে বলে ধারণা করছি। এ বিষয়ে আমি রিটার্নিং কর্মকর্তাকে মুখিক অভিযোগ করেছি। লিখিত অভিযোগের প্রস্তুতি নিচ্ছি।
উটপাখি প্রতীকের প্রার্থীর অভিযোগ অস্বীকার করে টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের প্রার্থী জাহিদুর রহমান শামীম বলেন, গতকাল সোমবার মহিলা রোড়ে স্থানীয় মহিলাদের নিয়ে আমার একটি উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই উঠান বৈঠক মহিলাদের উৎসবমূখর অংশ গ্রহণে মহিলা সমাবেশে পরিনত হয়। উঠান বৈঠকে ভোটারদের উপস্থিতি দেখে উটপাখি প্রতীকের প্রার্থী আবুল কালাম সুজন সহ অন্যান্য প্রার্থীরা নিশ্চিত পরাজয়ের আশংকা করছেন। তাই সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করতে আবুল কালাম সুজন নিজের নির্বাচনী ক্যাম্পে নিজেই আগুন দিয়ে আমি এবং আমার কর্মীদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার চালাচ্ছেন।
আবুল কালাম সুজন সহ অন্যান্য প্রার্থীদের নির্বাচনী মাঠে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা না করে ভোটারদের কাছে গিয়ে তাদের মন জয় করার আহ্বান জানান শামীম।
জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা রবিউল আলম জানান, পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে রাতের আধারে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্প আগুনে পুড়েছে বলে শুনেছি।  এ বিষয়ে লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
  • সংবাদ সংলাপ/এসইউ/রা

Sharing is caring!