নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভায় গলায় ফাঁস দিয়ে মোহাম্মদ হাশেম (২৭) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন।পুলিশ বলছে মিথ্যা ‍চুরির অপবাদ দেওয়ায় লোক লজ্জায় আত্মহত্যা করেছে সে।
সোমবার সকালে গণিপুর এলাকার খালপাড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোহাম্মদ হাশেম চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি উপজেলার হেয়াকো নতুন পাড়া এলাকার হেঞ্জু মিয়ার ছেলে। তিনি চৌমুহনী পৌরসভার গণিপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। পেশায় তিনি একজন রিকশা চালক।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন আগে গণিপুরের একটি গ্যারেজ থেকে স্থানীয় সোলায়মান নামের এক ব্যক্তির একটি অটোরিকশা চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রোববার দুপুরে সোলায়মান ও তার ছেলে রিকশা চুরির অপবাদ দিয়ে হাশেমকে ধরে নিয়ে যায়। পরে তারা আটকে রেখে হাশেমকে মারধর করে। পরে সন্ধ্যায় ফারুক নামের একজন ৪০হাজার টাকা জরিমানা দিবে মর্মে হাশেমকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। অপমান সহ্য করতে না পেরে সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নিজ বাসার সিলিং এর বাঁশের সাথে স্ত্রীর ব্যবহৃত ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয় হাশেম। কিছুক্ষণ পর বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক হাশেমকে মৃত ঘোষণা করেন।
বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান সিকদার জানান, ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
  • সংবাদ সংলাপ/এসইউ/রা

Sharing is caring!