নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যত টাকা লাগে আরও টিকা নিয়ে আসবো। দেশের মানুষকে অনুরোধ করব আপনারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন। ঈদের আনন্দ সবার হবে, কিন্তু দেশের মানুষের জন্য খেয়াল রাখবেন। সবাই মাস্ক পড়বেন।

রবিবার (২ মে) করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত নিম্নআয়ের ৩৫ লাখ পরিবারকে সহায়তার কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি বিনা পয়সায় টিকা দিয়ে দিচ্ছি যেন মানুষ সুরক্ষিত থাকে। মানুষের স্বাস্থ্য সেবাসহ কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ব্যাপকভাবে আমরা স্বাস্থ্য খাতে কাজ করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, যারা দৈনিক আয়ের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে তাদের জন্য আড়াই হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা আমরা দিচ্ছি। আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব ছিল ততটুকু করেছি। এটা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, দুস্থ্য মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা আমরা চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। কৃষকদের ভাগ্য গড়াই ছিল জাতির পিতার স্বপ্ন।বিত্তশালীরা আপনাদের আশেপাশের লোকদের সাহায্য করুন। জনগণের পাশে দাঁড়ান। পৃথীবির কোনো দেশ আছে কি-না যারা এত দ্রুত মানুষের পাশে পৌঁছাতে পারে।

শেখ হাসিনা বলেন, সব সময় দুর্গত মানুষের পাশে আওয়ামী লীগ আছে। কৃষকের ধান কাটাসহ সব আমরা করছি। আমাদের প্রত্যেকেই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা বিরোধী দল থাকতে সবার আগে আমরাই মানুষের পাশে ছুটে গেছি। আজ যারা বিরোধী দল তারা কি করেছে? কিছুই করেনি। আমাদের বুদ্ধি জীবীদের বুদ্ধি তখন খোলে যখন আওয়ামী লীগ করে ফেলে তখন। আমাদের কাজ গুছিয়ে আনার পর তারা আমাদের পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, যারা সমালোচনা করেন তারা নিজেরা হিসেব দিন কয়টা লোককে সহায়তা করেছেন। রাজনীতি জনগণের কল্যাণের জন্য, যা আমরা কখনও ভুলি না। আওয়ামী লীগ আসার পর মানুষ সেবা পাচ্ছে। মানুষ যা সুবিধা পাচ্ছে সব আওয়ামী লীগের জন্য।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/সকা

Sharing is caring!