নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে মো. জোবায়ের হোসেন (৪৫) নামের এক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য পদপ্রার্থী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো ৬ জন।

শুক্রবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার সোনাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন চরচেঙ্গা বাজারে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. জোবায়ের হোসেন সোনাদিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের আবু তাহেরের ছেলে এবং তিনি ওই ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও ইউপি সদস্য প্রার্থী ছিলেন।
সংঘর্ষে আহতরা হলেন, মেহেদী হাসান জীবন (২২), মো. ইরাক উদ্দিন (৩৫), আজগর হোসেন রাজু (৩০), মো. জিহাদ উদ্দিন (২২) সহ ৬ জন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকালে চরচেঙ্গা বাজারে জেলেদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান নুর ইসলাম মালেশিয়া। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এই চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ তুলে স্থানীয়রা। এনিয়ে চেয়ারম্যানের লোকজনের সাথে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী ও ওই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মেহেদী হাসানের সমর্থক জোবায়েরসহ কয়েকজনের বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের লোকজন এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জোবায়ের হোসেনসহ ৭জনকে আহত করে। পরে তারা কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জোবায়ের হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্যান্য আহতদের ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আসন্ন নির্বাচন পরিষদ নির্বাচনে সোনাদিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মেহেদী হাসান অভিযোগ করে বলেন, সকালে চেয়ারম্যানের লোকজন বাজারে ত্রাণ বিতরণ করছিলেন। এসময় আমার সমর্থক জোবায়ের ও ইরাক দোকানে বসা ছিলো। কোন প্রকার উস্কানি ছাড়াই চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মালেশীয়ার লোকজন দোকানে প্রবেশ করে জোবায়ের, তার ছেলে জীবন ও আমার কর্মী ইরাককে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে। অস্ত্রধারীদের হামলায় জোবায়ের মারা যায়।

এবিষয়ে সোনাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নুর ইসলাম মালেশিয়ার মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

হাতিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহত জোবায়েরের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/বি

Sharing is caring!