কলকাতা সংবাদদাতা :

নিজ দলের বিপুল জয়ের দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি পরাজিত হচ্ছেন, এমন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে রোববার সকাল থেকে।

পশ্চিমবঙ্গের নন্দীগ্রামে ভোটের ফল নিয়ে বিকেল থেকে বিভ্রান্তি আর নাটকীয়তা তৈরি হলেও সন্ধ্যার পর মমতার হার নিশ্চিত হয়। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ওই আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নয়, সত্যিকারের জয় পেয়েছেন বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী।

এর ফলে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস বিপুল জয় পেলেও দলের প্রধান মমতা হারলেন নিজের আসনে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে হারতে পারেন, সকালে এ শঙ্কা ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে আলোচনাটি শুরু হয়, পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী তাহলে কে হবেন। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে এই প্রশ্নে কোনো দ্বিধা বা দ্বন্দ্ব নেই।

তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের মুখ্যমন্ত্রী হবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই। নির্বাচনে হেরে গেলেও মমতার মুখ্যমন্ত্রী হতে কোনো সাংবিধানিক বাধা নেই।

নিয়ম হচ্ছে, সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া দলের নবনির্বাচিত বিধায়কেরা তাদের পরিষদীয় নেতা নির্বাচিত করবেন। সেই পরিষদীয় নেতা বিধায়ক না হলেও কোনো অসুবিধা নেই।

তবে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেয়ার ছয় মাসের মধ্যে তাকে কোনো একটি বিধানসভা কেন্দ্র বা বিধানপরিষদ থেকে নির্বাচিত হতে হবে। পশ্চিমবঙ্গে বিধানপরিষদ ব্যবস্থা নেই। এখানে বিধানসভায় নির্বাচিত হয়ে আসতে হবে।

  • সংবাদ সংলাপ/এমএস/দু

Sharing is caring!